– এই যে ম্যাম…
– হ্যাঁ বলুন?
– একটু পিছিয়ে দাঁড়াবেন please?
– কেন বলুন তো?
– আমার গায়ে লাগছে…
– কী লাগছে?
– উফ! কী লাগছে আমি এই ৫০০ জনের লাইনে জোরে জোরে বলতে পারবো না।
– আপনার এই কথাটা শোনার জন্য আমায় লাইনের বাইরে যেতে হবে?
– আমি সেটা কখন বললাম? আপনি একটু পিছিয়ে দাঁড়ান তাহলেই হবে।
– আমি পিছিয়ে দাঁড়ালে পেছনের জনেরটা আমার গায়ে লাগবে। তাতে সমস্যার সম্ভাবনা বেশী। কারন উনি ছেলে।
– সে তো আমিও ছেলে?
– হ্যাঁ কিন্তু আপনি তো gay!
– মানে? আমি কখন সে কথা বললাম?
– সব কথা বলতে হয় নাকি! আপনি যে কারনে আমায় পিছিয়ে দাঁড়াতে বললেন সেটা কোনো straight ছেলে হলে বলতো না। বরং যতটা পারে তত বেশী মজা নিয়ে নিত।
– সব ছেলে একরকম এই misconception টা রাখবেন না। এতে আপনারই ক্ষতি।
– অর্থাৎ আপনি নিজেকে আমার দেখা প্রথম আদর্শবাদী পুরুষ বলে claim করতে চাইছেন?
– আমি আপাতত আমার ভাগের ২০০০ টাকা claim করতে চাইছি। কিন্তু লাইনটা এগোচ্ছেই না।
– ৪৫০০ না?
– নাহ। কমিয়ে দিয়েছে তো। জানেন না?
– এই রে! নাহ তো। কবে থেকে?
– আজ থেকেই তো!
– Fuck!
– হুম।
– শালা নিজের কষ্টের টাকার জন্য এভাবে অপদস্থ হতে হবে কোনোদিন ভাবিনি।
– সে তো Trump কোনোদিন president হবে সেটাও ভাবা যায় নি। কি আর করা যাবে। Shit Happens!
– কোনোভাবেই ২০০০ এর বেশী তোলা যাবে না, না?
– নাহ! যদি না আপনার ২ টো atm card থাকে।
– নেই!
– তাহলে যাবে না।
– হুম!
– খুব জরুরী কিছু?
– নাহ! বাদ দিন। লাইন এগোচ্ছে। এগোন।
– আপনি চাইলে বলতে পারেন।
– আসলে আজ আমার ছেলের জন্মদিন। তাই ওকে একজন লেখকের সব বই গিফট করবো ভেবেছিলাম। ও খুব বই পড়তে ভালোবাসে। কিন্তু ২০০০ হলে টাকাটা Short পড়ে যাবে।
– আপনার ছেলে?… আপনি বিবা-
– নাহ! বিবাহিত নই। আমি Single Mother.
– ওহ! আচ্ছা… কার বই?
– Sorry?
– কোন লেখকের বই গিফট করবেন ভেবেছেন?
– সত্যজিৎ রায়।
– হুম। আপনি এক কাজ করুন আমার থেকে ২০০০ ধার নিন। পরে দিয়ে দেবেন।
– আমাকে দেখে কি Damsel in Distress মনে হচ্ছে? অত দয়া করতে হবে না।
– আরে দয়া না। ২ টো কারন আছে। সে জন্যেই দিতে চাইছি।
– কী কারন?
– একটা কারন হল যে 2016 তে দাঁড়িয়ে বই পড়তে ভালোবাসে এরকম একটা ছেলেকে সত্যজিৎ রায় এর বই থেকে বঞ্ছিত করা সাহিত্যতঃ দন্ডনীয় অপরাধ। এটা হতে দেওয়া যায় না।
– আর দ্বিতীয় কারন টা?
– দ্বিতীয় কারন হল… এখন যা চলছে তাতে টাকা ফেরত দেওয়ার জন্য আপনাকে আবার ATM এ লাইন দিতে হবে। তখন আর আদর্শবাদী পুরুষ হয়ে পিছিয়ে দাঁড়াতে বলব না।
– ইস! খুব শখ না?
– you have no idea. 😉

সব চরিত্র কাল্পনিক ৪

Post navigation


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: